25 C
Dhaka
Friday, December 2, 2022
প্রচ্ছদমাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষাবিশ্ববিদ্যালয়অবশেষে শুরু হলো বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তিযুদ্ধ

অবশেষে শুরু হলো বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তিযুদ্ধ

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তিযুদ্ধধ করোনার কারণে প্রায় এক বছরেরও বেশি সময় বন্ধ থাকার পর শুরু হলো বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তিযুদ্ধ। শুক্রবার বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসে (বিইউপি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়েছে। অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ও দ্রুত সময়ের মধ্যে ভর্তি পরীক্ষা শুরু করতে পারবে বলে জানিয়েছেন উপাচার্যরা।

করোনার কারণে দুই দফা সময় পরিবর্তন করে ভর্তি পরীক্ষা শুরু করেছে বিইউপি। শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিকেল ৩টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত কলা এবং সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

শনিবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত সিকিউরিটি এন্ড স্ট্র্যাটেজিক অনুষদ এবং বিকেল ৩টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিজনেস অনুষদের ভর্তি পরীক্ষার মধ্য দিয়ে শেষ হবে বিইউপির এবারের ভর্তিযুদ্ধ। মোট চারটি অনুষদের এ ভর্তি পরীক্ষা এবার ঢাকা, চট্টগ্রাম, বগুড়া ও খুলনার চারটি শহরে একযোগে নেওয়া হচ্ছে।

জানা গেছে, এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা মূলত ২০২০ সালের জুলাই মাস থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে গত বছরের এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। পরে ২০২১ সালের ৩০ জানুয়ারি পূর্ববর্তী জেএসসি-এসএসসি পরীক্ষার গড় ফলাফলে তাদের বিশেষ মূল্যায়ন (অটো পাস) দেওয়া হয়। এ ব্যাচটি এখন বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষার ভর্তিযুদ্ধে নেমেছে।

শিক্ষার্থীরা বলছেন, করোনার কারণে ভর্তি পরীক্ষা না হওয়ায় তাদের জীবন থেকে একটি বছর হারিয়ে গেছে। প্রতি বছর এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহে এইচএসসি সমমানের পরীক্ষা শুরু হয়। ৯০ দিনের মধ্যে এর ফল প্রকাশ হয়। সে হিসেবে জুলাই মাসে বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল, ইঞ্জিনিয়ারিংসহ বিভিন্ন উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়। আগস্ট বা নভেম্বর সব উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভর্তি শেষ হয়ে যায়। কিন্তু করোনাভাইরাসের প্রথম ও দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে একের পর এক ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত করতে বাধ্য হয় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে গত ২ এপ্রিল শুধুমাত্র সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কবে খোলা হবে তা নিয়ে অনিশ্চিয়তা থাকলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তা কাটতে শুরু করেছে। কয়েক লাখ ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থী অন্তত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি হওয়ার কাজটুকু শেষ করে রাখতে পারবেন।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কবে খোলা হবে তা নিয়ে অনিশ্চিয়তা থাকলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তা কাটতে শুরু করেছে। কয়েক লাখ ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থী অন্তত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি হওয়ার কাজটুকু শেষ করে রাখতে পারবেন।জানা গেছে, বিইউপির পর অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত থাকা ভর্তি পরীক্ষাগুলো নেওয়া শুরু হবে। সেক্ষেত্রে আগামী মাস সেপ্টেম্বর থেকে পুরোদমে চলবে ভর্তি পরীক্ষা। চলতি মাসেই আর্মড ফোর্সেস ও আর্মি মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া ডেন্টাল ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১০ সেপ্টেম্বর নেওয়ার কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগ।

বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্টরা জানান, এবার ভর্তি পরীক্ষা শেষ করতে বেশি সময় প্রয়োজন হবে না। কারণ প্রথমবারের মত ২০টি বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়া সাতটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় আলাদাভাবে গুচ্ছে ভর্তি পরীক্ষা নেবে। এছাড়া বুয়েট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো বড় বিশ্ববিদ্যালয়গুলো ভর্তি পরীক্ষার তারিখ দিলেই দ্রুত সময়ে এ কর্মযজ্ঞ শেষ করা সম্ভব। স্নাতকে সবচেয়ে বেশি আসন থাকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি আবেদন শেষ। এ বিশ্ববিদ্যালয়ও এসএসসি-এইচএসসির রেজাল্টের ওপর ভর্তি করিয়ে থাকে। তাই এখানে কোনো ভর্তি পরীক্ষা হবে না।

২০২০ সালের এইচএসসি ও সমমানের মূল্যায়নে সারাদেশে ১৩ লাখ ৬৫ হাজার ৭৮৯ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় ‘অটো পাস’ করেন। এছাড়া ২০১৯ সালে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় নয় লাখ ৮৮ হাজার ১৭২ জন পাস করেন। এ শিক্ষার্থীদের চার থেকে পাঁচ লাখই বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবেন।

বর্তমানে দেশে ৪৬টি স্বায়ত্তশাসিত ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে একাডেমিক কার্যক্রম চালু রয়েছে। তবে প্রতিবারের মতো এবারও মূল লড়াইটা হবে ৩৯টি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্ধ লাখেরও বেশি আসনে।

বুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক সত্য প্রসাদ মজুমদার বলেন, সরকার যেহেতু লকডাউন খুলে দিয়েছে, তাই আর বেশি দিন আমাদের ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত রাখার সুযোগ নেই। ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। আশা করছি, দ্রুত সময়ের মধ্যেই ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে একটি সিদ্ধান্ত নিয়ে জানিয়ে দিতে পারব।

Subscribe

মতামত লিখুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

সর্বশেষ সংবাদ