24 C
Dhaka
Tuesday, December 6, 2022
প্রচ্ছদভর্তিবেসরকারি মেডিকেলে ভর্তি আবেদনের সময় বাড়ল

বেসরকারি মেডিকেলে ভর্তি আবেদনের সময় বাড়ল

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ভর্তি আবেদনের সময়সীমা ১৫ দিন বাড়ানো হয়েছে। বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলোয় ভর্তির তারিখ ১ থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত নির্ধারণ ছিল। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৩০ জুন পর্যন্ত ভর্তি আবেদন চলবে। স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের চিকিৎসা শিক্ষা-১ শাখা থেকে এ–সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে বেসরকারি মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস কোর্সে ছাত্রছাত্রী ভর্তির আবেদন গ্রহণের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে। কলেজগুলো শর্ত অনুযায়ী এ বছরের মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার লিখিত পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে ৪০ নম্বর প্রাপ্ত বা তদূর্ধ্ব প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা ভর্তির আবেদন করতে পারবেন।

নানা উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠা নিয়ে করোনা সংক্রমণের মধ্যেই অনুষ্ঠিত হয় মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা। এরপর ফল প্রকাশ করা হয়। গত ২৫ এপ্রিল ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি ও ক্লাস শুরুর তারিখ নির্ধারণ করে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ২২ মে শুরু হয়ে ৩১ মে পর্যন্ত এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি কার্যক্রম চলার কথা ছিল। এক সপ্তাহ বেড়ে এখন ভর্তির শেষ সময় ৭ জুন পর্যন্ত।

দেশের সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে অনেক আগেই। ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় প্রাথমিকভাবে যোগ্য বিবেচিত হয়েছেন ৪৮ হাজার ৯৭৫ জন। আসন ফাঁকা থাকা সাপেক্ষে তাঁদের মধ্যে প্রথম ৪ হাজার ৩৫০ জন উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীকে ৩৭টি সরকারি মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস কোর্সে ভর্তির জন্য নির্বাচন করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

গত ২ এপ্রিল সারা দেশের ১৯টি কেন্দ্রের ৫৫টি ভেন্যুতে একযোগে মেডিকেলে ভর্তির জন্য পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ৪ এপ্রিল সন্ধ্যায় এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়। জাতীয় মেধার ভিত্তিতে সরকারি ৩৭টি মেডিকেল কলেজে ভর্তির জন্য ৪ হাজার ৩৫০ জন ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থী নির্বাচিত হন। এর মধ্যে সাধারণ আসন ৪ হাজার ২৩০টি। আর মুক্তিযোদ্ধার পুত্র-কন্যা এবং পুত্র-কন্যাদের পুত্র-কন্যার জন্য ৮৭টি, রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি তিন পার্বত্য জেলার জন্য রাঙামাটি মেডিকেল কলেজে ১৩ আসন ও পশ্চাৎপদ জনগোষ্ঠীর জন্য ২০টি নিয়ে ৩৩টি সংরক্ষিত আসনসহ মোট আসন ৪ হাজার ৩৫০টি। একই সঙ্গে মেধাভিত্তিক ১ হাজার ৪২ জনকে অপেক্ষমাণ তালিকায় রাখা হয়েছে। আসন শূন্য হলে মেধা ও পছন্দ অনুযায়ী তাঁরা ভর্তির সুযোগ পাবেন।

Subscribe

মতামত লিখুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

সর্বশেষ সংবাদ